ব্যালফোর ঘোষণা কি?

ব্যালফোর ঘোষণা

ব্যালফোর ঘোষণা প্যালেস্টাইনে ইহুদি রাষ্ট্র ‘ইসরাইল’ প্রতিষ্ঠার ইতিহাসে একটি গুরুত্বপূর্ণ ও সুদূরপ্রসারী ঘটনা। ইহুদি জাতীয়তাবাদী আন্দোলনের ফলে ১৮৮২-১৯১৪ সাল পযর্ন্ত ইউরোপ ও পাশ্চাত্যের অন্যান্য দেশ হতে ইহুদিদের প্যালেস্টাইনে পুনর্বাসনের যে প্রয়াস লক্ষ করা যায় ১৯১৭ সালের ব্যালফোর ঘোষণার মধ্য দিয়ে তা একটি প্রাতিষ্ঠানিক ও আন্তর্জাতিক ভিত্তি লাভ করে। প্যালেস্টাইনে একটি ইহুদি রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠায় ব্যালফোর ঘোষণা একটি তাৎপর্য্য বিষয় হিসেবে পরিগণিত।

ব্যালফোর ঘোষণা

উনিশ শতকের দ্বিতীয়ার্ধে রাশিয়া ও পূর্ব ইউরোপের দেশসমূহ হতে ইহুদি বিতাড়নের ফলে ইহুদিদের জন্য একটি নির্দিষ্ট আবাসভূমি প্রতিষ্ঠার ব্যাপারে ইহুদি জাতীয়তাবাদী নেতৃবৃন্দ একটি বাস্তবমুখী কর্মপন্থা গ্রহণে তৎপর হয়। ১৮৯৭ সালে ব্রাসেলসে আন্তর্জাতিক ইহুদি সম্মেলন ও আন্তর্জাতিক ইহুদি সংগঠন প্রতিষ্ঠার মধ্য দিয়ে প্যালেস্টাইনে ইহুদিদের জন্য একটি আবাসভূমি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে বিভিন্নমুখী কর্মকাণ্ড পরিচালিত হয়। রাশিয়া, ব্রিটেন ও আমেরিকার বিত্তবান ও প্রভাবশালী ইহুদিদের প্রচেষ্টায় ১৮৮২-১৯১৪ সাল পযর্ন্ত প্রায় ৭০ হাজার ইহুদি প্যালেস্টাইনে পুনর্বাসিত হয়। এভাবে প্যালেস্টাইনে ইহুদি রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার জন্য আন্তর্জাতিক ইহুদিবাদী আন্দোলন ক্রমশ জোরদার হয়ে উঠে। এমতাবস্থায় ১৯১৪ সালে প্রথম বিশ্বযুদ্ধ শুরু হলে মিত্রপক্ষ বিশেষ করে গ্রেট ব্রিটেন আরবের মুসলমান ও ইহুদি সম্প্রদায়কে এ মর্মে আশ্বাস দেয় যে, তারা মিত্রশক্তির পক্ষে যুদ্ধে অংশ নিলে যুদ্ধের পর তাদের স্বাধীনতা দেয়া হবে। এমতবস্থায় হোসেন ম্যাকমোহন পত্রালাপের ভিত্তিতে আরবের মুসলমানগণ মিত্রশক্তির পক্ষে যুদ্ধে অংশ নেয়। অন্যদিকে ১৯১৭ সালের ২ নভেম্বর ব্রিটিশ সরকারের পক্ষে বৈদেশিক সচিব লর্ড ব্যালফোর ব্রিটেনের ইহুদি সংঘের সভাপতি লর্ড রথচাইল্ডের নিকট এ মর্মে একটি পত্র লিখেন যে, ইহুদিরা মিত্রশক্তির পক্ষে যুদ্ধে অংশ নিলে তাদেরকে প্যালেস্টাইনে একটি আবাসভূমি প্রতিষ্ঠার ব্যাপারে ব্রিটিশ সরকার সহযোগিতা করবে। সে মোতাবেক ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী আর্থার ব্যালফোর (Arthur Belfour) ১৯১৭ সালের ২ নভেম্বর প্যালেস্টাইনে ইহুদিদের জন্য একটি জাতীয় রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা সম্পর্কিত একটি পরিকল্পনা প্রস্তুত করে তা ঘোষণা করেন। ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী আর্থার ব্যালফোর কর্তৃক ঘোষিত উক্ত পরিকল্পনাটি তার নামানুসারে ‘ব্যালফোর ঘোষণা’ (Belfour Declaration) নামে পরিচিত।

ব্যালফোর ঘোষণা শুধু প্যালেস্টাইন সমস্যার ইতিহাস নয়; পরবর্তী সমগ্র মধ্যপ্রাচ্যের ইতিহাসে একটি উল্লেখযোগ্য ঘটনা। এই ব্যালফোর ঘোষণা প্রকারান্তরে প্যালেস্টাইনে ইহুদি রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্র প্রস্তুত করেছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published.