ফুতু-আল-বুলদান কী?

ফুতু-আল-বুলদান

আল-বালাজুরী কর্তৃক রচিত ফুতু আল বুলদান একখানা ঐতিহাসিক গ্রন্থ। এই গ্রন্থে মুসলিম বিজয় ও বিজিত দেশসমূহের আলোচনা রয়েছে।

লেখক পরিচিতিঃ

ফুতু-আল-বুলদান গ্রন্থের লেখক ছিলেন আল-বালাজুরী। তার প্রকৃত নাম ছিল আবুল আব্বাস আহম্মদ ইবনে জারির আল-বালাজুরী। তিনি ছিলেন আব্বাসীয় খলিফা আল-মুতাওয়াক্কিলের একজন শুভাকাঙ্খী সহচর। তিনি ‘বালাজুর’ (ভারতীয় ভাং) পান করে মানসিক উন্মত্ততাজনিত রোগে মারা যান (২৭৯ হিঃ) বলে তাকে ‘বালাজুরী’ বলা হয়।

গ্রন্থের ঐতিহাসিক মূল্যঃ

মহানবী (সাঃ)-এর জীবনে যে সমস্ত যুদ্ধ-বিগ্রহ সংঘটিত হয়েছিল তার বিবরণী দিয়েই আল বালাজুরী ‘ফুতু-আল-বুলদান’ গ্রন্থের কার্য্যক্রম শুরু করেন। এছাড়া বালাজুরী এ গ্রন্থে ধর্মপ্রাণ খোলাফায়ে রাশেদীনের ইতিহাস এবং বিভিন্ন দেশ জয়, বিশেষ করে সিরিয়া, মিশর, ইরাক, আর্মেনিয়া ও পারস্য বিজয়ের ইতিহাস আলোচনা করেছেন।আর ইতিহাস সংক্রান্ত এ সমস্ত উপকরণ সংগ্রহ করেছেন তিনি বিভিন্ন শহর পরিভ্রমণকালে বাস্তব অভিজ্ঞতালব্ধ জ্ঞান এবং সহজলভ্য বর্ণনা হতে। অবশ্য এ ক্ষেত্রে তিনি যাচাই বাছাই করার পর ইতিহাসের উপকরণ এবং ঘটনার সাথে সামঞ্জস্য বিধান করে এর গুরুত্ব বর্ধিত করতেন। এর ফলে তার রচিত ‘ফুতু-আল-বুলদান’ একটি সমৃদ্ধ গ্রন্থে রূপ লাভ করে।

আল-বালাজুরী রচিত ‘ফুতু-আল-বুলদান’ গ্রন্থের ঐতিহাসিক মূল্য অপরিসীম। এ গ্রন্থ রচনার জন্য আজও তিনি অমর হয়ে আছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.