তৃতীয় সেলিম কে ছিলেন?

তৃতীয় সেলিম

অটোমান সুলতান প্রথম আব্দুল হামিদের মৃত্যুর পর সমগ্র সাম্রাজ্যে যখন গোলযোগ, অশান্তি বিশৃঙ্খলা, দুর্নীতি ও বৈদেশিক শত্রুর আগ্রাসী থাবা উদ্যত প্রায় ঠিক সে মুহূর্তে তৃতীয় সেলিম অটোমান সিংহাসনে আরোহণ করেন। সুশাসক ও প্রজারঞ্জক হিসেবে তিনি অশেষ খ্যাতি অর্জন করেন। তার সুদীর্ঘ দেড় যুগের ঘটনাবহুল রাজত্বকাল ওসমানীয়দের জন্য সর্বশেষ গৌরবের ইতিহাস বহন করে।

সুলতান তৃতীয় সেলিমের পরিচয়

সুলতান তৃতীয় সেলিম ছিলেন অটোমান সম্রাট প্রথম আব্দুল হামিদের ভ্রাতুষ্পুত্র। তিনি ১৭৮৯ সালে তুরস্কের ওসমানীয় সালতানাতে অধিষ্ঠিত হন এবং ১৮০৭ সাল পযর্ন্ত সাম্রাজ্য শাসন করেন।ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত হয়েই তিনি সাম্রাজ্যের বিদ্রোহ ও অরাজকতা দমন এবং বৈদেশিক শত্রুর আগ্রাসন হতে দেশকে মুক্ত করেন। হাঙ্গেরি, ট্রান্সসালভানিয়া, ক্রিমিয়া এবং কৃষ্ণসাগর ও আরব সাগরের উত্তরে তুর্কি প্রভুত্ব অবলুপ্ত হলেও তৃতীয় সেলিম পৃথিবীর ইতিহাসে একটি বৃহত্তম ও সর্বাপেক্ষা সমৃদ্ধিশালী সাম্রাজ্যের অধীশ্বর ছিলেন। ইউরোপীয় আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে তুর্কি সুলতানদের মধ্যে তৃতীয় সেলিমই সর্বপ্রথম অটোমান সাম্রাজ্যের নানাবিধ সংস্কারমূলক পদক্ষেপ গ্রহণ করেন। সুলতান তৃতীয় সেলিম কেন্দ্রের ক্ষমতাবৃদ্ধি ও প্রাদেশিক বিদ্রোহ দমনের জন্য অভ্যন্তরীণ প্রশাসনিক সংস্কার অর্থনৈতিক উন্নতি সাধন ও সেনাবাহিনী পুনঃর্গঠনের ব্যবস্থা করেন।

সুলতান তৃতীয় সেলিম তুরস্কের আধুনিকীকরণে যে সকল সংস্কার কার্য্য সম্পন্ন করেন তার গুরুত্ব অনস্বীকার্য্য। সুলতান প্রথম সেলিম তুর্কি সাম্রাজ্যকে মজবুত ও বলিষ্ঠ করেন আর তৃতীয় সেলিম তুরস্ককে আধুনিক রূপ দান করেন। অভ্যন্তরীণ সংস্কার সাধনের জন্য তিনি তুরস্কের ইতিহাসে চিরস্মরণীয় হয়ে রয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.