আলমাওয়ার্দী কে?

আলমাওয়ার্দী

মুসলিম বিশ্বের সর্বশ্রেষ্ঠ আইনজ্ঞ ও শিক্ষাবিদ ছিলেন আলমাওয়ার্দী। আইনের অধ্যাপক হিসেবে তিনি বসরা ও বাগদাদে কর্মরত ছিলেন। তার যোগ্যতার বলে আব্বাসীয় খলিফা আল-কায়ূমের সময়ে তিনি বাগদাদের কাজীউল কুজ্জাত পদে সমাসীন হন।

আলমাওয়ার্দী পরিচয়

আল মাওয়ার্দীর প্রকৃত নাম ছিল আবুল হাসান আলী ইবনে মুহাম্মদ ইবনে হাসিব আল মাওয়ার্দী। হিজরি ৩৬৪ সনে তিনি জন্মগ্রহণ করেন এবং হিজরি ৪৫০ সালে ইন্তেকাল করেন।

আলমাওয়ার্দী গ্রন্থাবলী

আল মাওয়ার্দী একজন ইসলামি আইন বিশেষজ্ঞ হলেও ইতিহাসে তিনি একজন শ্রেষ্ঠ রাষ্ট্র বিজ্ঞানী হিসেবে পরিচিত। আইন ও রাষ্ট্র চিন্তার উপর রচিত তার গ্রন্থাবলীর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো-

১. আহকামুস সুলতানিয়া

২. নাছিয়াতুলমূলক

৩. কানুন-উল-ওয়াজিরাত

৪. তাহসিল-উল-নাজার-ফি-তাহদীন-উজ-জাকার।

রাজনৈতিক চিন্তাধারা

রাজনৈতিক চিন্তাধারার সর্বক্ষেত্রেই আল মাওয়ার্দীর বিচরণ রয়েছে। তিনি ইসলামি রাষ্ট্রের মূল ভিত্তি খিলাফতের প্রকৃতি ও স্বরূপ সম্পর্কে যে সুস্পষ্ট ধারণা ব্যক্ত করেন সে সম্পর্কে নিম্নে আলোচনা করা হলো-

ক. ইমামত বা খিলাফত

আল মাওয়ার্দীর মতে, ইমাম একটি নির্ধারিত পদ। একজন ইমাম নির্বাচন করা মুসলমানদের অবশ্য কর্তব্য। ইমামের প্রতি আনুগত্য ধর্মীয় কর্তব্যের একটি অংশ।  

খ. ইমামের যোগ্যতা

আল মাওয়ার্দী ইমাম বা খলিফা নির্বাচনের জন্য বিশেষ কতকগুলো গুণাবলির কথা উল্লেখ করেছেন। তার মধ্যে নিম্নোক্তগুলো উল্লেখযোগ্য-

১. ইমামকে হতে হবে কুরাইশ বংশোদ্ভূত।

২. ইমাম হবে পুরুষ ব্যক্তি।

৩. তাকে পূর্ণ বয়স্ক হতে হবে।

৪. তাকে সচ্চরিত্রবান হতে হবে।

৫. তাকে শারীরিক ও মানসিক ব্যাধিমুক্ত হতে হবে।

৬. তাকে হাদিসভিক্তিক জ্ঞানের অধিকারী হতে হবে।

৭. তাকে মুসলিম নিরাপত্তার জন্য সাহসী হতে হবে।

গ. ইমামের নির্বাচন

আল মাওয়ার্দীর মতে, প্রত্যেক যোগ্যতাসম্পন্ন মুসলমান ইমাম নির্বাচনের সদস্য হবে। নির্বাচকমণ্ডলী কর্তৃক খলিফা নির্বাচিত হওয়ার পর সে নির্বাচনকে জনগণের মান্য করতে হবে।

ঘ. ইমামের প্রতি বায়াত

আল মাওয়ার্দীর মতে, খিলাফতের সাথে বায়াতের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রয়েছে। বায়াত ব্যতীত কোন খিলাফত স্বীকৃত হবে না।

ঙ. খলিফার দায়িত্ব ও কর্তব্য

আল মাওয়ার্দী মুসলিম বিশ্বের খলিফার ১০টি দায়িত্ব ও কর্তব্যের কথা বলেছেন, যা রাষ্ট্র পরিচালনার ক্ষেত্রে খুবই প্রয়োজনীয়।

সমকালীন ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে বিশ্বকে সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য আল মাওয়ার্দী তার রাজনৈতিক চিন্তাধারা ব্যক্ত করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.